• chanakyabangla

আলুবীজের আকাশ ছোঁয়া দামে চিন্তার ভাঁজ আলুচাষীদের কপালে


আলুবীজের আকাশ ছোঁয়া দামে চিন্তার ভাঁজ আলুচাষীদের কপালে

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

অন্যান্য বছরের তুলনায় আলু বীজের দাম আকাশছোঁয়া তাই দুশ্চিন্তায় দিন গুনছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার আলুচাষিরা। জানাযায় পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিস্তীর্ণ এলাকার চাষিরা আলু চাষের উপর নির্ভরশীল। এককথায় আলু চাষকে অর্থকারী ফসল হিসাবে বেছে নেয় কেশপুর, গড়বেতা, গোয়ালতোড়, শালবনি, চন্দ্রকোনা, ঘাটাল সহ বিস্তীর্ণ এলাকার কৃষকরা। কিন্তু করোনা আতঙ্কের মাঝে এই বছর অন্যান্য বছরের তুলনায় কৃষি জমির জৈব সার থেকে শুরু করে আলু বীজের দাম দ্বিগুণ। অন্যান্য বছর যেখানে ১৫০০ থেকে ২০০০ হাজার টাকায় আলুবীজ কিনত চাষিরা সেইখানে এই বছর ৩৫০০ থেকে ৪০০০ টাকায় আলু বীজ কিনতে হচ্ছে। আগে আলু চাষ করতে বিঘে পিছু খরচ হতো কুড়ি হাজার টাকা, সেখানে এবছর খরচা পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা। তাই ঋণ করে এত টাকা খরচ করে আলু চাষ করে আলু চাষে লাভ না হলে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়বেন চাষীরা এমনই দাবি জেলার কৃষকদের। তাদের একটাই দাবি আলুর বীজের দাম ও সারের দামে দ্রুত হস্তক্ষেপ করুক সরকার। চন্দ্রকোনা রোড আলুবীজ ব্যবসায়ী সমিতির কর্মকর্তারা জানান, প্রতিবছর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় ১০ হাজার মেট্রিকটন আলুর বীজ আসে। কিন্তু এই বছর যোগান কম, এবং বাইরের রাজ্যে বীজের দাম বাড়ার কারণে এখানেও আলু বীজের দাম দ্বিগুণ হচ্ছে। আর এত দামি আলু বীজ কিনে আলু লাগিয়ে আদেও লাভ হবে কিনা তাই নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন চাষিরা। তাই আলু চাষে অনেকটাই কাটছাঁট করছেন চাষীরা।