• chanakyabangla

আসানসোলের ছয় কয়লা ব্যবসায়ীকে সমন পাঠাল সিবিআই


আসানসোলের ছয় কয়লা ব্যবসায়ীকে সমন পাঠাল সিবিআই

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

গোরুপাচার চক্রে অভিযুক্ত এনামুল হককে গ্রেফতারের পরই উঠে এসেছিল কয়লা মাফিয়া তথা ব্যবসায়ী অনুপ মাজি ওরফে লালার নাম। তারপর থেকেই নজরবন্দি করা হয় লালাকে। এবার লালারই ঘনিষ্ঠ আসানসোলের ছ’জন কয়লা ব্যবসায়ীকে নোটিস পাঠাল সিবিআই। ব্যবসা সংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র-সহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিবিআই দফতরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাদের।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে অমিত শাহর বঙ্গ সফর চলাকালীন অতি সক্রিয় হয়ে আসানসোলের বেশ কয়েকজন কয়লা ব্যবসায়ীর বাড়ি ও অফিসে হানা দিয়েছিল আয়কর দফতর। অন্যদিকে, দিল্লিতে গিয়ে গোরুপাচারকাণ্ডের মূলপাণ্ডা এনামুল হককে গ্রেফতার করে সিবিআই। তদন্তে গোয়েন্দারা জানতে পেরেছে, এই লালা উত্তরবঙ্গে কয়লা পাচারের জন্য এনামুলের গাড়ি ব্যবহার করত। দু’জনের মধ্যে কোটি টাকার লেনদেন ছিল। লালার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ আরও ছ’জন ব্যবসায়ী। সিবিআইয়ের পরবর্তী টার্গেট এই ব্যবসায়ীরা।

প্রসঙ্গত, বিরোধী রাজ্যগুলিতে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলির অতি সক্রিয়তা নিয়ে বারবার প্রতিবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অমিত শাহ বাংলা সফরে আসাকালীনও নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে সাংবাদিক সম্মলনে কেন্দ্র-রাজ্যের মধ্যে ‘লক্ষণ রেখা’ টেনে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আচরণের অভিযোগ তোলেন তিনি। এমনকি প্রশ্ন তোলেন, রাজ্য পুলিশকে অন্ধকারে রেখে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে অভিযান চালাচ্ছে কেন কেন্দ্রীয় সংস্থা? এরপর অমিত শাহ পালটা মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে প্রশ্ন ছোঁড়েন। বলেন, ‘ওনার সঙ্গে লালার কী সম্পর্ক? কেন উনি বাঁচাতে চাইছেন, তা স্পষ্ট করে বলুন।’ এরপর থেকেই অনুপ মাজি ওরফে লালাকে নিয়ে রাজনৈতিক জলঘোলা শুরু হয়েছে।