• chanakyabangla

এখনও এত জনপ্রিয়তা! শাস্তি দেওয়ার পরপরই সুশান্ত ঘোষকে ফেরানোর ভাবনা আলিমুদ্দিনের


এখনও এত জনপ্রিয়তা! শাস্তি দেওয়ার পরপরই সুশান্ত ঘোষকে ফেরানোর ভাবনা আলিমুদ্দিনের

________-----------------------------

চাণক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

মাত্র তিন মাসের সাসপেনশন। দলের দুঁদে নেতা তথা প্রাক্তন মন্ত্রী সুশান্ত ঘোষকে শাস্তি দিতে গিয়ে ছুঁচো গেলার দশা রাজ্য সিপিএমের (CPM)। এই শাস্তিতেও বেশ ক্ষুব্ধ তাঁর অনুগামী, পার্টিকর্মীদের একটা বড় অংশ। একসময়ের পার্টির কাণ্ডারী পশ্চিম মেদিনীপুরের নেতা সুশান্ত ঘোষের জনপ্রিয়তা এই কঠিন সময়েও পার্টি কর্মীদের কাছে প্রবল। সাংগঠনিক দক্ষতায় তাঁর ধারেকাছে নেই আলিমুদ্দিন কাঁপানো বহু নেতা। আর এই ‘কারণ’-এর সামনে প্রবল তর্জনগর্জন করেও পিছু হঠতে হল আলিমুদ্দিনকে। রা়জ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ তো দূরঅস্ত! বরং তাঁকে সাসপেনশন থেকে বার করে এনে কীভাবে সংগঠনের কাজে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, সেটাই এখন বড় মাথাব্যথার কারণ সিপিএমের। 


দলীয় সূত্রে খবর, নিচের তলায় তাঁর জনপ্রিয়তা ও সাংগঠনিক দক্ষতার কথা চিন্তা করে ইচ্ছে থাকলেও বেশি দূর এগোনোর সাহস দেখাননি পার্টির ভোট ম্যানেজাররা। বরং ‘ধরি মাছ, না ছুঁই পানি’র  মতো সুশান্ত ঘোষকে তিন মাসের জন্য সাসপেন্ড করেই ক্ষান্ত দিতে হয়েছে যুদ্ধে। অবশ্য তাতেও কি রক্ষা পাওয়া গেল? সূত্রের খবর, সুশান্ত ঘোষকে সাসপেনশনের খবর ছড়াতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় ওঠে। পার্টি কর্মী-সমর্থকদের পোস্টে ক্ষোভ উদ্গীরণ দেখে চক্ষু চড়কগাছ শীর্ষ নেতৃত্বের।