• chanakyabangla

করোনার বিভীষিকা মনে করাবে বড়িশা ক্লাবের ‘পরিযায়ী মা’, মূর্তি সংরক্ষণের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর ।


করোনার বিভীষিকা মনে করাবে বড়িশা ক্লাবের ‘পরিযায়ী মা’, মূর্তি সংরক্ষণের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

হয়ত একদিন করোনামুক্ত হবে সারা পৃথিবী। কিন্তু থেকে যাবে করোনার স্মৃতি। করোনাকালের সঙ্গে সম্পর্কিত পরিযায়ী শ্রমিকদের কষ্টের কথাও যাতে দেশবাসী মনে রাখেন সেকথা মাথায় রেখে বড়িশা ক্লাবের দুর্গাপ্রতিমা সংরক্ষণের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এবার বড়িশা ক্লাবের থিম ছিল ‘ত্রাণ’। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের বেশিরভাগ পুজো ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী। হাতেগোনা কয়েকটি মণ্ডপে গিয়ে প্রদীপ জ্বালিয়ে উদ্বোধন করেন। সেই তালিকায় ছিল বড়িশা ক্লাব। সেখানে গিয়ে দেবী প্রতিমা দেখে হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। পরিযায়ী মায়ের আদলে গড়া দুর্গা প্রতিমার ছবিও মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। নেটিজেন থেকে রাজনীতিবিদ সব স্তরের মানুষের প্রশংসা কুড়িয়েছে এই মূর্তি। তাই এবার সেই প্রতিমাই সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। মঙ্গলবারই ক্লাব কর্তৃপক্ষকে সরকারোর তরফে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানিয়ে দেন, আপাতত রবীন্দ্র সরোবরের ‘মা ফিরে এল’ প্রদর্শনগৃহে সংরক্ষিত করে রাখা হবে ‘পরিযায়ী মা’কে। পরবর্তীতে দেবী প্রতিমা কোনও আইল্যান্ডে রাখার পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। মূর্তিটির নামানুসারে রাস্তার নাম দেওয়া হবে বলেও জানা যাচ্ছে। আপাতত মূর্তিটি যাতে রোদে নষ্ট না হয় তাই আচ্ছাদনের বন্দোবস্ত করা প্রয়োজন বলেই মনে করছেন থিম শিল্পী রিন্টু দাস।