• chanakyabangla

দেশকে ২১ শতকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এই নতুন কৃষি বিল, মোদি


চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

দেশকে ২১ শতকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এই নতুন কৃষি বিল দরকারি এবং ঐতিহাসিক। সোমবার কৃষি বিল নিয়ে দেশজুড়ে চলা প্রতিবাদের মধ্যেই এই দাবি করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একইসঙ্গে বিরোধীদের নাম না করে মোদির তির্যক মন্তব্য, নিজেদের হাত থেকে নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা চলে যাওয়ার ভয়েই কয়েকজন মানুষ ইচ্ছে করে কৃষকদের উস্কানি দিচ্ছে।

বিহার বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে এখন বিহারে উন্নয়নের বন্যা বইয়ে দিতে শুরু করেছে বিজেপি। সেভাবেই সোমবার ৯টি সড়ক তৈরি প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের অনলাইন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে মোদি বলেন, ‘‌গতকাল দুটি কৃষি বিল সংসদে পাস হয়েছে। আমি আমার কৃষকদের অভিনন্দন জানাচ্ছি। বর্তমান সময়ে কৃষি ক্ষেত্রে এই বদলটা দরকারি ছিল এবং আমাদের সরকার কৃষকদের জন্য এই সংস্কার এনেছে।’

মোদির দাবি, ‘‌এই বিলগুলি কৃষকদের স্বাধীনভাবে তাঁদের পণ্য যেকোনও জায়গায় বেচতে সাহায্য করবে। আমি পরিষ্কার করতে চাই যে এই বিল কৃষি মন্ডির বিরুদ্ধে নয়। আমি প্রত্যেক কৃষককে আশ্বস্ত করতে চাই যে নূন্যতম সহায়ক মূল্য আগের মতোই থাকবে।’‌ এই বিলের মাধ্যমে বড় বড় হিমঘরে সহজেই কৃষকরা পণ্য মজুত করতে পারবেন, এবং কোনওরকম আইনি জটিলতা থাকবে না। এর ফলে হিমঘর ব্যবস্থাও অনেক সহজ হয়ে যাবে, এই দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। নিজের দাবির প্রমাণে মোদির যুক্তি, মহামারীর সময় কৃষকদের কাছ থেকে রবি শস্য কেনা হয়েছিল। তাতে ১,১৩,০০০ কোটি টাকা পেয়েছেন কৃষকরা। যা গত বছরের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি। ভোজ্য তেল, ডাল, আলু, পেঁয়াজের মতো পণ্য এই বিলের আওতার বাইরে রাখা হয়েছে। জানালেন তিনি।