• chanakyabangla

পুন্ডিবাড়ি পর সিতাইএ নাবালিকা ধর্ষণের অভিযোগ, পরিবারের সাথে দেখা করলেন বিজেপি প্রতিনিধি দল।


পুন্ডিবাড়ি পর সিতাইএ নাবালিকা ধর্ষণের অভিযোগ, পরিবারের সাথে দেখা করলেন বিজেপি প্রতিনিধি দল।

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক: যতই বিধানসভা নির্বাচনে করছে, ততোই কোচবিহার জেলা জুড়ে বাড়ছে ধর্ষণের মতো ঘটনা, কিছুদিন আগে পুন্ডিবাড়ী তে ধর্ষণের ঘটনায় উত্তাল হয়েছিল সারা জেলা, এর রেশ কাটতে না কাটতেই আবারো ধর্ষণের অভিযোগ উঠল কোচবিহার জেলার সিতাই ব্লকের ব্রহ্মত্বচাত্রা গ্রাম পঞ্চায়েতে এলাকায়, পূজা দেখে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের অভিযোগ কেন্দ্র করে, উত্তাল হয়ে উঠেছে ব্রহ্মোত্তর চাত্রা এলাকা।দিনহাটার সিতাই ব্লকের ব্রহ্মোত্তরচাত্রা এলাকায় গত ২৩ অক্টোবর এই ঘটনা ঘটে।নির্যাতিতার পরিবার কে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখানো হয় বলে অভিযোগ।পরিবারের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার সিতাই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নাবালিকা ধর্ষণের খবর পেয়ে, বুধবার ওই বাড়িতে যান। এক বিজেপি প্রতিনিধি দল, ছিলেন জেলা সভাপতি মালতি রাভা, সাংসদ নিশীথ প্রামানিক, সুদীপ কর্মকার জেলা সম্পাদক, ও অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব।


তবে অভিযুক্ত ওই দুই যুবককে পুলিশ এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি, পুলিশ ওই দুই অভিযুক্তের খোঁজের পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। তবে ওই অভিযুক্ত দুই যুবক তৃণমূল এর সঙ্গে জড়িত বলে দাবি করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি জেলা সভাপতি মালতি রাভা বলেন'পুজো দেখে ফেরার পথে ১১ বছরের এক নাবালিকাকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে তৃণমূল আশ্রিত দুই দুষ্কৃতি। নির্যাতিতার পরিবারকে প্রলোভন ও হুমকি দেওয়া হয়।মঙ্গলবার পরিবারের পক্ষ থেকে সিতাই থানায় অভিযোগ করা হয়েছে, অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের পাশাপাশি কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন তিনি।

তৃণমূল নেতৃত্ব অবশ্য বলেন, ধর্ষকরা কোন দলের হতে পারে না। এদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

সিতাই কেন্দ্রের বিধায়ক জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়া বলেন,”যারা এধরনের কাজ করে তারা কোন দলের হতে পারে না। অভিযুক্ত রা যাতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পায় তার জন্য পুলিশকে বলা হয়েছে।”