• chanakyabangla

ফ্রান্সের পণ্য বয়কট করে সমালোচনার স্বীকার, লে পটাকা, লে পটাকা আইটেম গার্ল।


চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক: ফ্রান্সে নবীর কার্টুন এক মুসলিম ছাত্র কে দেখায় এক শিক্ষক, সেই মুসলিম ছাত্র মেনে নিতে পারেনি সেই কার্টুন কে , তাই গলাকেটে হত্যা করে ওই ছাত্র তার শিক্ষককে, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, কঠোর মন্তব্য করেন ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতির। তার এই মন্তব্য বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছে পুরো মুসলিম দুনিয়া। এর সাথে সাথে চলছে ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের ডাক, সেই ডাকে সাড়া দিয়েছে মুসলিম দেশ বাংলাদেশ।

সেই পথ অনুসরণ করে শনিবার ভোরের দিকে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে ফরাসি পণ্য বয়কটের ঘোষণা দেন হালের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। শুধু বয়কটই করেনি, নিজের ব্যবহৃত ফ্রান্সের তৈরি বিলাসবহুল কারটায়ার ঘড়িটিকেও ফেলে দিয়েছেন বলে জানান।

এ স্ট্যাটাসের পর পরই চারিদিক থেকে ইতিবাচক ও নেতিবাচক মন্তব্য আসতে থাকে। নেটিজেনদের থেকে যেমন প্রশংসা পেয়ে যাচ্ছেন তেমনি সমালোচনাতেও ডুবছেন। অবশেষে সেসব সমালোচকদের একহাত নিলেন নুসরাত।

শনিবারই বিকালে ফের আরেকটি স্ট্যাটাস দেন নুসরাত ফারিয়া।

সেখানে লেখেন, কেন একটি সহজ বিষয়কে এতটা জটিল করে তুলতে হবে? যদি কারোর কথা আমার অনুভূতিতে আঘাত করে তবে কি সেটা জানানোর অধিকার নেই? নাকি অভিনেত্রী বলে আমার কোনো মতামতই থাকতে পারে না? আমার ধ'র্ম আমার বিশ্বাস এবং আমার সহ্যসীমার বাইরে চলে যায় এমন কিছু নিয়ে কথা বলার ২০০ ভাগ অধিকার আমার আছে।