• chanakyabangla

বড়দিনের আগেই বাজারে মিলতে পারে মার্কিন-জার্মান সংস্থার তৈরি করোনা টিকা


বড়দিনের আগেই বাজারে মিলতে পারে মার্কিন-জার্মান সংস্থার তৈরি করোনা টিকা

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

বড়দিনের আগেই সুখবর মিলতে পারে। জার্মান ওষুধ নির্মাতা সংস্থা বোয়োএনটেক দাবি করেছে, সব ঠিক থাকলে ক্রিসমাসের আগে বাজারে করোনা ভ্যাকসিন আনতে পারে তাদের সংস্থা। তবে ভারতে ফাইজারের টিকা ব্যবহার করা যাবে না বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এপ্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, গোটা দেশে ফাইজারের টিকা বণ্টন করতে হলে মাইনাস ৭০ ডিগ্রি কোল্ড চেনের নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে হবে। ভারতে সেই পরিকাঠামো গড়ে তোলা সম্ভব নয়।


উল্লেখ্য, জার্মান সংস্থা বায়োএনটেক এর সঙ্গে মিলিতভাবে এমআরএনএ প্রযুক্তির সাহায্যে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরি করেছে ফাইজার। বুধবারই ফাইজার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিলেন, মানবদেহে তৃতীয় পর্যায়ের ভ্যাকসিন প্রয়োগের ট্রায়ালে ৯৫ শতাংশ সাফল্য পেয়েছে তাঁদের করোনা টিকা। বৃহস্পতিবার আবার বায়োএনটেকের কর্ণধার উগুর সাহিন একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘সব ঠিকমতই এগোচ্ছে। আশা করা হচ্ছে, ডিসেম্বরের গোড়াতেই আমরা করোনা টিকা উৎপাদনের ছাড়পত্র পেয়ে যাব। ক্রিসমাসের আগেই তা বাজারে সরবরাহ করতে পারব।’


একইসঙ্গে এও দাবি করা হয়েছে, ফাইজারের এই টিকায় কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ধরা পড়েনি। বয়স এবং স্থান ভেদে টিকার কার্যকারিতার কোনও তারতম্য হয়নি। বিশ্বের ছয়টি দেশের প্রায় ৫০ হাজার স্বেচ্ছাসেবকের উপর তাঁদের করোনা টিকার পরীক্ষা করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই হিউম্যান ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তৃতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত ফলাফল বিশ্লেষণের রিপোর্ট আমেরিকার ‘ফুড ড্রাগ অ্যান্ড সেফটি অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’-এর কাছে পেশ করা হবে। সঙ্গে, টিকা উৎপাদনের অনুমতিও চাওয়া হবে বলে।