• chanakyabangla

বিজেপির বনধ ঘিরে রণক্ষেত্র বাগনান, 'হাওড়া জ্বালিয়ে দেওয়া'র হুঁশিয়ারি সৌমিত্রর


বিজেপির বনধ ঘিরে রণক্ষেত্র বাগনান, 'হাওড়া জ্বালিয়ে দেওয়া'র হুঁশিয়ারি সৌমিত্রর

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

বিজেপির নবান্ন অভিযান ও সেই কর্মসূচি ঘিরে পুলিশ-বিজেপি কর্মী সংঘর্ষের ঘটনার এখনও দু'মাস পেরিয়েছে। এর মধ্যে ফের বৃহস্পতিবার পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়াল বিজেপি। এবার বাগনান বনধ এবং বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁকে সেখানে ঢুকতে পুলিশের বাধা দেওয়ার ঘটনায় রণক্ষেত্র হয়ে উঠল কিঙ্কর মাজির এলাকা। বিজেপি অবশ্য পুলিশের এই বাধা মুখ বুজে মেনে নিতে নারাজ। তাই হাওড়া জ্বালিয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন বিষ্ণুপুরের সাংসদ। তিনি বলেন, 'এবার গোটা হাওড়া জ্বলে যাবে, আমাদের ছেলেদের গ্রেফতার করা হল কেন? ওদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে।' একইসঙ্গে তাঁর অভিযোগ, যাঁরা সত্যি দোষী, খুলে আম ঘুরছে তাঁরা।'

জানা গিয়েছে, বিজেপি নেতা কিঙ্কর মাজির মৃত্যুর প্রতিবাদে বাগনানে চলছে ১২ ঘণ্টার বন্‌ধ। সকালের দিকে শান্তিপূর্ণভাবে আংশিক বনধ পালিত হলেও বেলা যত বেড়েছে, ততই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বাগনান। বিশেষত বাগনানে ঢোকার মুখে সৌমিত্র খাঁকে পুলিশ আটকে দিলে কার্যত তুলকালাম বাধে। বিজেপি সমর্থকরা থানার গেটে বিক্ষোভ দেখায়। গেট ভেঙে ভিতরে ঢোকারও চেষ্টা চালানো হয়। সামনে চলে আসেন স্থানীয় বিজেপির মহিলা মোর্চারাও। লাথি মেরে ফেলে দেওয়া হয় পুলিশের সমস্ত গার্ডরেল। সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায় যানচলাচল। বিজেপি কর্মী সমর্থকদের ভিড় বাড়তে শুরু করে এলাকায়। সবমিলিয়ে, গত ৮ অক্টোবরের নবান্ন অভিযানের ঘটনা মনে করিয়ে দিল এদিনের বিজেপির বাগনান বনধ।