• chanakyabangla

‘রাজ্য পুলিশে প্রচুর পদ ফাঁকা, তৃণমূল কর্মীদের সিভিক পুলিশে নিয়োগ’, রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মামলা।


‘রাজ্য পুলিশে প্রচুর পদ ফাঁকা, তৃণমূল কর্মীদের সিভিক পুলিশে নিয়োগ’, সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মামলা

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

‘রাজ্য পুলিশে প্রচুর পদ ফাঁকা, তৃণমূল কর্মীদের সিভিক পুলিশে নিয়োগ’; সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে দায়ের হল মামলা। পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ বাহিনীতে; প্রচুর শূন্যপদ পড়ে রয়েছে। কিন্তু কোন নিয়োগ হচ্ছে না। ইচ্ছাকৃত ভাবে সেই সব শূন্যপদ পূরণ না করে; শাসক দলের কর্মীদের সিভিক পুলিশ হিসেবে; নিয়োগ করা হচ্ছে বলে সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল। সিভিক পুলিশ দিয়ে; আসল পুলিশের কাজ করানো হচ্ছে। এর ফলে তিনটি উদ্দেশ্য একসঙ্গে পূরণ হচ্ছে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের। বেতন হিসাবে টাকা কম লাগছে; আর তৃণমূল কর্মীদের আয়ের উপায় খুলে যাচ্ছে। আবার ভোটের সময় এরাই; শাসক দলের হয়ে কাজ করবে। এর বিরুদ্ধেই, সরাসরি দেশের শীর্ষ আদালতে; জনস্বার্থ মামলা করলেন আইনজীবী আবু সোহেল।


চলতি সপ্তাহেই সুপ্রিম কোর্টে এই মামলার; শুনানি হতে পারে। আইনজীবী আবু সোহেল এই মামলায় অভিযোগ করেছেন; ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে, পরিকল্পিত ভাবেই; শাসক দলের কর্মীদের সিভিক পুলিশ বা সিভিক ভলান্টিয়ার হিসেবে ঠিকা ভিত্তিতে নিয়োগ করা হচ্ছে। উদ্দেশ্য হল, নাগরিকদের শাসক দলের হয়েই; মত প্রকাশ্যে বাধ্য করা। এর মাধ্যমে স্বজনপোষণ চলছে। কিন্তু রাজ্য সরকারি ভর্তি প্রক্রিয়া মেনে; পুলিশের শূন্যপদ পূরণে পদক্ষেপ করছে না।


পুলিশের কাজ করানো হচ্ছে; সিভিক পুলিশ দিয়ে। ফলে রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে বলেই; সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেছেন আবু সোহেল। এই জনস্বার্থ মামলায়, সোহেল আরও অভিযোগ তুলেছেন যে; ২০১৭-য় পশ্চিমবঙ্গ সরকার সুপ্রিম কোর্টে আশ্বাস দিয়েছিল; রাজ্য পুলিশের ৩৭ হাজার শূন্যপদ পূরণ করা হবে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কিছুই হয়নি।


সুপ্রিম কোর্টও তার নির্দেশে বলেছিল; নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শূন্যপদ পূরণ করা না হলে; নিয়োগের দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশকর্তা ও স্বরাষ্ট্র দফতরের কর্তাদের ব্যক্তিগত ভাবে দায়ী করা হবে। তারপরেও কোন কাজ হয় নি; বলেই অভিযোগ। রাজ্য পুলিশে এখন; প্রায় ৪০ হাজারের বেশি শূন্যপদ রয়েছে। আবু সোহেলের আর্জি; সুপ্রিম কোর্ট রাজ্যকে আইন মেনে; পুলিশ কর্মী নিয়োগ করতে নির্দেশ দিক। একই সঙ্গে পুলিশের কাজ করার জন্য, সিভিক পুলিশ নিয়োগ করতে; রাজ্যকে বারণ করা হোক।