• চাণক্য বাংলা

লাদাখ সীমান্তে ফের আগ্রাসন চিনের

Updated: Sep 1



চাণক্য বাংলা নিউজ ডেস্ক : নয়াদিল্লি:

মুখে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের কথা বললেও কাজের ক্ষেত্রে চিন তা কতটা চায়, তা নিয়ে বহুবার প্রশ্ন উঠেছে। পূর্ব লাদাখে প্যাংগং সো লেকের দক্ষিণ তীরে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার অবস্থা পরিবর্তনের লক্ষ্যে চিন সেনার ‘প্ররোচনামূলক সামরিক গতিবিধি’-র পর সেই প্রশ্ন আরও জোরালো হল।

সোমবার ভারতীয় সেনার তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, পূর্ব লাদাখের সীমান্ত বিবাদ ঘিরে সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরের আলোচনায় ভারত ও চিন যে ঐক্যমতে পৌঁছেছিল, গত ২৯-৩০ অগাস্টের মধ্যবর্তী রাতে তা লঙ্ঘন করেছে পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)। সেনার জনসংযোগ আধিকারিক কর্নেল অমন আনন্দ জানান, সীমান্তের অবস্থা পরিবর্তনের জন্য চিন সেনা ‘প্ররোচনামূলক সামরিক গতিবিধি’ চালিয়েছে। তবে বিবৃতিতে এও বলা হয়েছে, ‘প্যাংগং সো লেকের দক্ষিণ তীরে চিন সেনার গতিবিধি আগেই রুখে দিয়েছে ভারতীয় বাহিনী। সীমান্তে একতরফাভাবে তথ্য পরিবর্তনের চিনের যে উদ্দেশ্য ছিল, তা রুখে দেওয়া হয়েছে।’

পাশাপাশি সেনার তরফে এটাও স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে যে, আলোচনার মাধ্যমে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ভারতীয় সেনা বদ্ধপরিকর। কিন্তু নিজেদের আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা করার ক্ষেত্রেও তারা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। তাই ফের একবার পরিস্থিতি সমাধানের জন্য চিনের সঙ্গে আলোচনায় বসছে ভারত। সমস্যা সমাধানের জন্য চুশুলে ব্রিগেড কমান্ডার পর্যায়ের ফ্ল্যাগ মিটিং চলছে বলেও সেনার তরফে জানানো হয়েছে।