• chanakyabangla

স্পুটনিক ফাইভ'-এ সিলমোহর! প্রথম করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য রাশিয়াকে ধন্যবাদ হু-র


'স্পুটনিক ফাইভ'-এ সিলমোহর! প্রথম করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য রাশিয়াকে ধন্যবাদ হু-র

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

সুর বদল! রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন 'স্পুটনিক ফাইভ'-কে স্বীকৃতি দেওয়া দূর, এটির ট্রায়ালের পদ্ধতি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কিন্তু যত সময় যাচ্ছে, তত সুর নরম করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। শুধু সুর নরম নয়, করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারে আন্তরিক চেষ্টার জন্য রাশিয়ার ভূয়সী প্রশংসা করে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইউরোপের রিজিওনাল ডিরেক্টর হান্স ক্লুজ।

জানা গিয়েছে, সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইউরোপের রিজিওনাল ডিরেক্টর হান্স ক্লুজ রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরাসখোর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। সেই বৈঠকেই হু-কর্তা এই ভ্যাকসিন তৈরির জন্য রাশিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বলে সে দেশের সংবাদমাধ্যমের দাবি। রাশিয়ার এই ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পর্বের ট্রায়ালেও সাফল্য আসবে দাবি জানিয়ে ক্লুজ বলছেন, 'আমি রাশিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করেছি। এখানকার ভ্যাকসিন তৈরির ইতিহাস আমি জানি। তাই আমি নিশ্চিত এই বৃহৎ, চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়ালেও রাশিয়া সাফল্য পাবে।' হু- কর্তার এই মন্তব্যের পরই গুঞ্জন শুরু হয়েছে, তাহলে কি এবার নিজেদঅবস্থান পুরোপুরি বদলে স্পুটনিক ফাইভকে স্বীকৃতি দেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা?

উল্লেখ্য, রাশিয়াই প্রথম করোনা ভ্যাকসিন 'স্পুটনিক-ফাইভ' আবিষ্কার করে। এটিই পৃথিবীর প্রথম কার্যকরী করোনা ভ্যাকসিন বলে সাংবাদিক বৈঠক করে দাবি জানান খোদ রাশিয়ার রাষ্ট্রনায়ক ভ্লাদিমির পুতিন। কিন্তু পুতিনের সেই দাবি মানতে নারাজ বিশ্বের অনেক দেশই। এমনকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও এতদিন এই দেশগুলির সুরে সুর মিলিয়ে এসেছে। তাদের দাবি ছিল, এই ভ্যাকসিনটির প্রাথমিক ট্রায়ালের তথ্যই তাঁদের কাছে নেই। পরে অবশ্য হু-র আধিকারিকরাই রাশিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করে এই ভ্যাকসিন সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করেন।