• chanakyabangla

সোমবার রবি কিষাণ বলেছিলেন, সিনেমার জগতেও মাদকাসক্তি রয়েছে।


সোমবার রবি কিষাণ বলেছিলেন, সিনেমার জগতেও মাদকাসক্তি রয়েছে।

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

সোমবার রবি কিষাণ বলেছিলেন, সিনেমার জগতেও মাদকাসক্তি রয়েছে। কঙ্গনা সম্প্রতি এই বলিউড জগতকে ‘‌নর্দমা’‌ বলেছিলেন। মঙ্গলবার রাজ্যসভায় দাঁড়িয়ে এসব মন্তব্যকেই একহাত নেন সপা সাংসদ জয়া বচ্চন। তার পর যথারীতি মাঠে নামলেন কঙ্গনা। পাল্টা খোঁচা দিলেন জয়াকে।

টুইটারে লিখলেন, ‘‌জয়াজি, আমার জায়গায় আপনার মেয়ে শ্বেতা কৈশোরে মার খেলে, শ্লীলতাহানির শিকার হলে বা অভিষেক ক্রমাগত হেনস্থার অভিযোগ তুলে গলায় দড়ি দিলেও একই কথা বলতেন?‌ আমাদের প্রতিও সমবেদনা জানান।’‌

৭২ বছরের সাংসদ জয়া এদিন রাজ্যসভায় বললেন আর্থিক দুরবস্থা এবং বেকারত্ব থেকে নজর ঘোরাতেই ছবির জগতের দিকে আঙুল তুলে বিবৃতি দেওয়া হচ্ছে। তাঁর কথায়, ‘‌আমাদের দেশে এই বিনোদন জগত রোজ সরাসরি পাঁচ লক্ষ মানুষের রুজি জোগায় এবং ঘুরপথে ৫০ লক্ষ মানুষের রোজগারের ব্যবস্থা করে। যখন দেশে অর্থনীতির অবস্থা বেহাল এবং বেকারত্ব চরমে, তখন মানুষের নজর ঘোরানোর জন্য আমরা সোশ্যাল মিডিয়া এবং সরকারের অসহযোগ দ্বারা তাড়িত হচ্ছি। কিন্তু যাঁরা এই ছবির জগতেই নাম করেছেন, তাঁরাই এখন একে নর্দমা বলছেন। আমি একেবারেই সহমত নই। আমি আশা করব, সরকার এই লোকজনকে এ ধরনের ভাষা ব্যবহার করতে বারণ করবে।’

সুশান্তকে মাদক জোগানের অভিযোগ গ্রেপ্তার হয়েছেন বান্ধবী রিয়া এবং তাঁর ভাই শৌভিক। বলিউডের মাদক–যোগ নিয়েই দিন কয়েক আগে মুখ খোলেন কঙ্গনা। দাবি করেন, বলিউডে কর্মরত ৯৯ শতাংশই মাদক নেয়। এই জগতকে ‘‌নর্দমা’‌ বলেও উল্লেখ করেন। 

এক টুইটার ইউজার লেখেন, এই বলিউড অনেককে কাজও জোগায়। শুধু অভিনেতা, পরিচালক নন, অনেক টেকনিশিয়ানরাও রয়েছেন এখানে। সেই টুইটের জেরেই কঙ্গনা লেখেন, ‘‌একদা এক বিখ্যাত কোরিওগ্রাফার বলেছিলেন, ধর্ষণ করেছে তো কী হয়েছে?‌ রুজিও তো দিয়েছে। এ রকমই বোঝাতে চাইছেন?‌ প্রযোজনা সংস্থাগুলোয় কোনও এইচআর বিভাগ নেই, যেখানে মহিলারা অভিযোগ জানাতে পারেন। যাঁরা রোজ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন, তাঁদের কোনও সুরক্ষা বা বিমা নেই। দিনে আট ঘণ্টার কাজের নিয়মবিধি নেই।’‌

কঙ্গনা এও লেখেন, টাকার সঙ্গে সঙ্গে কর্মীদের সম্মান দেওয়ার দরকার। ‘‌আমি চাই, এই কর্মী এবং জুনিয়র আর্টিস্টদের জন্য কেন্দ্র সরকার একগুচ্ছ সংস্কার আনুক।’‌ 

কঙ্গনা মুখে যাই বলুন, তাঁর বিরুদ্ধেও পার্শ্ব অভিনেতাদের অপমান করার অভিযোগ বারবার উঠেছে। এও অভিযোগ উঠেছে, যে মাদকের বশেই তিনি ওসব করেছেন।