• chanakyabangla

সীমান্ত পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে আছে, যার বিস্তারিত তথ্য সংসদে বলা সম্ভব নয়, বললেন রাজনাথ সিংহ


সীমান্ত পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে আছে, যার বিস্তারিত তথ্য সংসদে বলা সম্ভব নয়, লাদাখ ইশ্যুতে রাজ্যসভায় মন্তব্য রাজনাথের

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

সীমান্ত পরিস্থিতি এখন এমন পর্যায়ে আছে, যার বিস্তারিত তথ্য সংসদে বলা সম্ভব নয়। বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় লাদাখ ইশ্যুতে বিবৃতি দিতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। তবে চিন যে বেআইনিভাবে কেন্দ্রশাসিত লাদাখের প্রায় ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমি দখল করে রেখেছে এবং সেনা টহলদারি চালাচ্ছে বলেও স্বীকার করে নেন তিনি।

চিনের জমি দখল প্রসঙ্গে এদিন রাজনাথ বলেন, 'চিন এখনও বেআইনিভাবে কেন্দ্রশাসিত লাদাখের প্রায় ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমি দখল করে রেখেছে। সেই সঙ্গে পাকিস্তান তথাকথিত শিনো-পাকিস্তান এলাকা থেকে আরও ৫ হাজার ১৮০ বর্গ কিলোমিটার চিনের হাতে তুলে দিয়েছে। এসব ছাড়াও চিন ভারতের দখলে থাকা আরও ৯০ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমিকে নিজেদের জমি বলে দাবি করে।' একইসঙ্গে সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে সংসদে বিস্তারিত তথ্য দিতে নারাজ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর আবেদন, 'আশা করি সাংসদরা সরকারের অবস্থানের সঙ্গে সহমত হবেন।"

তবে লাদাখ সীমান্তে সেনার টহলদারিতে পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) বাধা দিচ্ছে কিনা তা নিয়ে প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী তথা কংগ্রেস সাংসদ অ্যান্টনির প্রশ্নের কড়া জবাব দেন রাজনাথ। তাঁর কথায়, 'কোনও অবস্থাতেই সেনা পিছু হটছে না। স্পর্শকাতর এলাকায় আগে যেমন টহলহারি দিত, সেনা চোখের উপর চোখ রেখে সেই কাজটা করে যাচ্ছে। বিশ্বের এমন কোনও শক্তি নেই সেই জায়গা থেকে সরাতে পারে সেনা।'