• chanakyabangla

২০২১’র শুরুতেই করোনা ভ্যাকসিন বিতরণ হতে পারে, আশ্বাস স্বাস্থ্য সচিবের


২০২১’র শুরুতেই করোনা ভ্যাকসিন বিতরণ হতে পারে, আশ্বাস স্বাস্থ্য সচিবের

চানক্য বাংলা ওয়েব ডেস্ক:

সারা বিশ্বের মানুষের কাছে এখন একটাই প্রশ্ন, ‘কবে আবিষ্কার হবে মারণ করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন?’ জুন, জুলাই মাস থেকে ভ্যাকসিন নিয়ে নানারকম জল্পনা তৈরি হয়েছে ঠিকই। কিন্তু কেউ নিশ্চিত করে আশার বাণী শোনাতে পারেননি। তবে বুধবার আরও একবার ভারতবাসীকে করোনা টিকা নিয়ে আশ্বস্থ করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ।


কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ জানিয়েছেন, ২০২১ এর গোড়ার দিক থেকেই করোনার টিকা বিতরণ শুরু হতে পারে দেশে। তার জন্য সমস্ত রাজ্যগুলির সঙ্গে আলোচনা করে গাইডলাইন তৈরির কাজ চলছে। প্রথমে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হবে। সেখানে নেওয়া হবে টিকার সংরক্ষণ ও বিতরণের কর্মসূচি। স্বাস্থ্য সচিব আরও বলেন, 'সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল টিকার সংরক্ষণ। দেশীয় টিকা হোক বা বিদেশ থেকে আনানো কোভিড ভ্যাকসিনের ট্রায়াল’ই হোক, সেগুলিকে প্রথমেই কোল্ড স্টোরেজে ঢোকাতে হবে। সঠিকভাবে টিকার সংরক্ষণ না-হলে ডোজ নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তারপর নির্ধারণ করা হবে কী পরিমাণে টিকার ডোজ রাজ্যগুলিতে পাঠানো যেতে পারে।' অক্টোবরের পর থেকেই টিকার বিতরণের যাবতীয় প্রকল্প ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন রাজেশ ভূষণ। এছাড়াও, টিকার ডোজ চলে এলে তা কীভাবে ল্যাবরেটরি থেকে বিতরণ করা হবে, আগামী ১৫ অক্টোবরের মধ্যে পরিকল্পনা ঠিক করে কেন্দ্রকে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্যগুলিকে। টিকার ডোজ বিতরণ নিয়ে সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) গ্লোবাল অ্যাডভাইজরি কমিটির তরফে বলা হয়েছে, গুরুত্ব বুঝে টিকার বিতরণ করতে হবে। কোনওরকম স্বার্থ বা উদ্দেশ্য ভেবে নয়।