• chanakyabangla

২৫০ বছর ধরে এভাবেই ভক্তি সহকারে পূজিত হচ্ছেন পুরুলিয়ার রঘুনাথপুরের বড় কালী।


কালীপুজোর দিন এখানে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হন। তাঁদের বিশ্বাস, জাগ্রত এই কালী ভক্তদের সব ইচ্ছাপূরণ করেন। আজ নয়, কথিত প্রায় ২৫০ বছর ধরে এভাবেই ভক্তি সহকারে পূজিত হচ্ছেন পুরুলিয়ার রঘুনাথপুরের বড় কালী।

রঘুনাথপুরের মৌতড় গ্রামে রয়েছে এই কালী মন্দির। আজও এখানে পাঁঠা বলি হয়। মোষও বলি দেওয়া হয়। এক সপ্তাহ ধরে পুজো উপলক্ষে চলে মেলা। শুধু অন্য জেলা নয়, পাশের রাজ্য ঝাড়খণ্ড থেকেও বহু মানুষ আসেন এখানে।

কথিত, প্রায় ২৫০ বছর আগে গ্রামের জমিদার বিশ্বনাথ ভট্টাচার্যের জামাই শোভারাম বন্দ্যোপাধ্যায় এই পুজো শুরু করেন। বিয়ের পর ঘরজামাই হয়ে থাকতেন। খুব কালীভক্ত ছিলেন শোভারাম। জঙ্গল,শ্মশানে ঘুরে বেড়াতেন। একদিন কালী মূর্তি প্রতিষ্ঠার স্বপ্নাদেশ পান তিনি।

এর পরই কালো পাথরের কালী মূর্তি গড়েন শোভারাম। তৈরি করেন পণ্ডমুণ্ডির আসন। ক্রমে দেবীর প্রচার হতে থাকে মুখে মুখে। দলে দলে ভিড় বাড়তে থাকে ভক্তদের। আজও মৌতড়ে চলছে এই পুজো।